নিষ্কাশন ব্যবস্থা সচল না থাকায় অল্প বৃষ্টিতেই টাঙ্গাইল শহরে জলাবদ্ধতা

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩, ২০২০

নিষ্কাশন ব্যবস্থা সচল না থাকায় অল্প বৃষ্টিতেই টাঙ্গাইল শহরে জলাবদ্ধতা

পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা সচল না থাকায় আধা ঘন্টার বৃষ্টিতে টাঙ্গাইল জেলা সদর সড়কে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এতে দুর্ভোগে চলাচল করছে যানবাহন ও পথচারীরা।

গতকাল বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) বিকেল চারটা থেকে সাড়ে চার পর্যন্ত টানা বৃষ্টি হয় টাঙ্গাইল শহরে। বৃষ্টিতে জেলা সদর সড়ক তলিয়ে যায়।

পথচারী ও স্থানীয়দের অভিযোগ, পৌরকর্তৃপক্ষ ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো না করায় একটু বৃষ্টিতেই রাস্তাটি তলিয়ে যায়।

বুধবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জেলা সদর সড়কের টাঙ্গাইল ক্লাব, পৌরউদ্যান, প্রেসক্লাব, জেলা শিক্ষা অফিস ও জেলা সদর এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। অল্প বৃষ্টিতেই জমে যায় হাটু পানি। খুব কষ্ট করে চলাচল করছে পথচারীরা।

এ সড়কে বাস চলাচল না করলেও রিকশা, মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার, সিএনজিসহ অন্যান্য যানবাহনে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের যাতায়াত। হাঁটু পরিমাণ ময়লা পানিতে কাপড় নষ্টসহ ভাঙ্গা ড্রেনে যানবাহনসহ লোকজন পড়ে যাওয়ার তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়েই এ রাস্তায় নিত্য যাতায়াত এলাকাবাসীর। কারণ এছাড়া বিকল্প কোনো রাস্তা নেই।

পথচারিরা আরও জানান, রাস্তা পাকা হলেও একটু বৃষ্টি এসড়ক চলাচলে অনুপযোগি হয়ে পড়ে। বৃষ্টি পানি ড্রেন ভর্তি হয়ে ড্রেন থেকে ময়লা আবর্জনাসহ পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত পানি রাস্তায় উপঠে পরায় পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। তাই পৌর এলাকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো করার দাবি জানান তিনি।

জলাবদ্ধাতার বিষয়ে জানতে চাইলে রিক্সা চালক সাইফুল ইসলাম বলেন, এ রাস্তায় অল্প বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। আর সকালের দিকে বৃষ্টি হলে এ জলবদ্ধতা থেকে যায় সারাদিন। এ সড়কের পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা ভালো নয়।

টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন জানান, টাঙ্গাইল পৌর এলাকায় বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তায় ড্রেন ও রাস্তা নির্মানের কাজ চলমান রয়েছে। কাজ সমাপ্ত হলে শহরের কোন সড়কে আর জলাবদ্ধতা থাকবে না।


এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ